Header Ads Widget

করোনাভাইরাস থেকে মানুষ যদি মুক্তি পেতে

     করোনাভাইরাস থেকে  মানুষ যদি  মুক্তি পেতে চান তাহলে কি মানুষকে সচেতন হতে হবে ভাইরাস ভারতবর্ষে অলিতে গলিতে ছড়িয়ে পড়েছে ডাক্তারদের মদ অনুযায়ী এই ভাইরাস থেকে বাঁচতে হলে মানুষকে আগে পরিবেশ পরিষ্কার রাখতে হবে প্রথমে,   গাছ লাগাতে হবে  এই গাছ না লাগালে মানুষ কিন্তু বেশীদিন বাঁচবেনা, তাই সকল মানুষকে একটাই কথা বলে গিয়েছে ডাক্তাররা সকলে যে যতটা সামর্থ্য অনুযায়ী  গাছ লাগান  এই গাছবাঁচাতে পারে  সাধারণ মানুষকে এই গাছ রুখতে পারে মরণ করোনাভাইরাস  কে 2021 এ মানুষের মধ্যে যে ভাইরাসটি আবির্ভূত হয়েছে সেই ভাইরাসের নাম করোনাভাইরাস মানুষের মাথার মধ্যে 24 ঘন্টা এই ভাইরাস ঘোরাফেরা করছে এই ভাইরাস কিন্তু মানুষের শরীর থেকে  বেরোচ্ছে না, কারণ মানুষ সব সময় এই ভাইরাসের কথা চিন্তা করতে থাকে তাই মানুষের মাথার ভেতর থেকে এই ভাইরাস বের হচ্ছে না ডাক্তাররা কিন্তু জানিয়ে দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  তৃতীয় ঢেউ আস্তে বেশিদিন বাকি নয়। 

মানুষ মারি এই করোনাভাইরাস কে  দমন করতে পরিবেশকে সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে গাছ লাগাতে হবে কারণ ইয়াস ঝড়ের তান্ডবে যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এই বাংলাতে এর ফলে যত বড় বড় গাছ সব গাছ কিন্তু ইয়াসের তাণ্ডব এর ফলে মাটিতে পড়ে গিয়েছে এর ফলে বড় গাছ কিন্তু আর নেই পরপর দুবার তিনবার তাণ্ডব এর ফলে ভারতবর্ষের বুকে বড় গাছের সংখ্যা কমে গিয়েছে কিন্তু এই ভাইরাস দমন করা সম্ভব হবে না সেজন্য সকল ডাক্তারদের একই মত যে গাছ লাগাতে হবে, গাছ না লাগালে মানুষ কিন্তু আর বেশীদিন বাঁচবে না আর বাঁচলেও মানুষের রোগ জীবাণু সবসময় রেগেই থাকে আর এই গাছ না লাগালে দিনের-পর-দিন সূর্যের তাপ কিন্তু পৃথিবীর বুকে বেশি পরিমাণ করার ফলে মানুষের শরীর ঝলসে দেবে সেইদিন আস্তে আর বেশি দিন বাকি নেই যত বেশি হবে আইল্যান্ড নামক জায়গাগুলিতে   বরফের স্তম্ভ জলের আকার ধারণ করে এর ফলে ছোট্ট ছোট্ট কিন্তু সাধারণ গ্রামগুলি যেমনি হাসে তাণ্ডবের কিন্তু সহ্য করতে পারেনি যে নদীর ঢেউ আসে সে সহ্য করতে পারেনি এরফলে হাজার হাজার গ্রাম এসে গিয়েছিলো সেজন্য মানুষকে বারবার বলা হচ্ছে যে গাছ লাগাতে হবে 2021 সালে মানুষের  নানান সমস্যায় পড়তে হচ্ছে সেই সমস্যা থেকে মানুষ বাঁচতে হলে গাছ বেশি পরিমাণে লাগাতে হবে কারণ গাছ না লাগালে 2050 সালের মধ্যে পৃথিবীটা জলে ভেসে যেতে পারে কারন যে পরিমাণ  বরফ জমাট বেঁধে আছে গ্রিনল্যান্ডে  সেই সকল বড়ক কিন্তু যত দিন যাচ্ছে জলে পরিণত হয়ে আমাদের ছোট্ট ছোট্ট নদীগুলোতে জলের চাপ সৃষ্টি করছে এর ফলে নদীর জল সহ্য করতে পারছে না এর ফলে অন্যায় পরিণত হচ্ছে সাধারণ গ্রামগুলি।

মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকল মানুষকে গাছ লাগানোর জন্য জানিয়ে দিয়েছেন নবান্ন থেকে কারণ কাজ না লাগালে পরবর্তীকালে সকল ঝড়ের গতিবেগ এই বাংলার দিকে আছে সেই ঝড়ের হাত থেকে বাঁচতে হলে মানুষকে কিন্তু বেশি বেশি করে গাছ লাগাতে হবে বেশি গাছ লাগাবেন নদীরপাড় যুক্ত এলাকাগুলিতে কারণ বেশি ক্ষতি হবে নদীর ধারে সেই জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নদীর পাড় গুলোতে বেশি বেশি করে গাছ লাগানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন সরাসরি নবান্ন থেকে, কারণ প্রকৃতি  দুর্যোগ  রক্ষা করতে প্রকৃতি সেই জন্য পরবর্তী দিন যে সকল ঝড় ভারতবর্ষের দিকে কে আসছে সেই দিকে চিন্তা করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নদীর  পার কংক্রিটের বাধানোরচেষ্টা করছে।

 2021 সালে যেসকল দুর্যোগ বা ক্ষয়ক্ষতি মানুষের মধ্যে হয়েছে পরবর্তী বছর কিন্তু তার চেয়েও বেশী দুর্যোগ মানুষের মধ্যে হতে পারে সেই কথা চিন্তা করে দেখো মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে নদীর পাড় গুলোকে মজবুত করে বাঁধার চেষ্টা করছে কারণ পরবর্তী দিন ইয়াস এর থেকেও বড় ঝড় বাংলার দিকে আসতে পারে সেই কথা বিজ্ঞানীরা জানিয়ে দিয়েছে সেই জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন থাকতে পরিস্থিতি সামাল দিতে চলেছে সমস্ত জায়গায় নদীর বাঁধ কংক্রিটের বাধানোর জন্য জানিয়ে দিয়েছে ও যে সকল জায়গাতে মাটির বাঁধ আছে সেইসকল জায়গাতে ম্যানগ্রোভ জাতীয় গাছ লাগানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে নবান্ন থেকে সরাসরি জানিয়ে দিয়েছে কারণ এই গাছ লাগানোর ফলে পৃথিবীর ভারসাম্য পালট হয়ে যাচ্ছে এর ফলে কখনো ভারী বৃষ্টির ফলে চাষের জমি নষ্ট করে দিচ্ছে আবার কখনও বৃষ্টি হচ্ছে না এর ফলে চাষের ক্ষতি হচ্ছে তাই পৃথিবীর ভারসাম্য কি সমান করে  রাখতে হলে মানুষকে আগেই গাছ লাগাতে হবে এই গাছ না থাকলে পরবর্তী দিন পৃথিবীতে সূর্যের তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে এর ফলে মানুষের নানান ধরনের রোগ-জীবাণু সৃষ্টি হবে ভারতবর্ষের বুকে করোনাভাইরাস এর  তৃতীয়ঢেউ আসতে চলেছে ,হাজার ষোল থেকে যেভাবে মানুষের বিশাল বড় বড় ঝড়ের সম্মুখীন হতে হচ্ছে সেই ঝড় থেকে বাঁচতে হলে মানুষকে আগে গাছ লাগাতে হবে কারণ এই সকল বড় বড় ঝড় হাত থেকে বাঁচাতে পারে একমাত্র গাছ এই সকলের জন্যই কিন্তু যে সকল।


Post a Comment

0 Comments